কুমিল্লা

আমন্ত্রণ পায়নি জমিদাতা সাবেক এমপির পরিবার

কুমিল্লার চান্দিনায় মডেল মসজিদের জন্য প্রায় তিন কোটি টাকা মূল্যের জমি দান করেছিলেন ওই আসনের প্রয়াত সংসদ সদস্য ও সাবেক ডেপুটি স্পিকার অধ্যাপক মো: আলী আশরাফ। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সোমবার (১৬ জানুয়ারি) মডেল মসজিদের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তবে ওই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পাননি প্রয়াত এমপি অধ্যাপক আলী আশরাফের ছেলে চান্দিনা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনতাকিম আশরাফ টিটু কিংবা তার পরিবারের কোনো সদস্য। এ নিয়ে দলের স্থানীয় নেতাকর্মী ছাড়াও বিভিন্ন মহলে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিষয়ে মুনতাকিম আশরাফ টিটু ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, তার বাবা এ আসনের (চান্দিনা) পাঁচবারের এমপি ছিলেন। তিনি বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগ মডেল মসজিদ নির্মাণের জন্য ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে চান্দিনার মাধাইয়া ইউনিয়নের কলাগাঁও এলাকায় প্রায় তিন কোটি টাকা মূল্যের ৩০ শতাংশ জমি দান করে মসজিদের ভিত্তিপ্রস্তরও স্থাপন করে গেছেন। নান্দনিক এ মসজিদের সঙ্গে তার বাবার অনেক স্মৃতি জড়িয়ে আছে।

কিন্তু মসজিদের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তাকে কিংবা তার পরিবারের কাউকে আমন্ত্রণ না জানানোর বিষয়টি দুঃখজনক বলে তিনি মন্তব্য করেন। রাজনৈতিক সংকীর্ণতা থেকে এমনটি করা হতে পারে বলে তিনি দাবি করেন।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন কুমিল্লার উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ৫০টি আমন্ত্রণপত্র বিলির জন্য চান্দিনায় পাঠানো হয়েছিল। স্থানীয় প্রশাসন আমন্ত্রিতদের তালিকা করে বিলি করার কথা, কারণ আমাদের কাছে তালিকা নেই। জমিদাতার পরিবার আমন্ত্রণ পেয়েছে কী না তা আমার জানা নেই।

এ বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মহিউদ্দিন আহমেদ আলম বলেন, মডেল মসজিদ আওয়ামী লীগ সরকারের একটি দৃষ্টিনন্দন বড় প্রকল্প। চান্দিনায়ও মডেল মসজিদ উদ্বোধন হলো। কিন্তু উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে আমন্ত্রণ দেওয়া হয়নি। বিষয়টি দুঃখজনক।

এ বিষয়ে চান্দিনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাপস শীল বলেন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রতিনিধি মাহবুব রহমানকে বলেছিলাম আমন্ত্রণপত্র দিতে। তারা দেওয়ার কথা, হয়তো দিয়েছেন। তবে সাবেক ওই এমপির পরিবারের কেউ উপস্থিত ছিলেন কী না তা দেখার সুযোগ হয়নি, আমি ব্যস্ত ছিলাম।

এ বিষয়ে জানতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রতিনিধি মাহবুব রহমানকে কয়েকবার ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

২০২১ সালের ৩০ জুলাই কুমিল্লা-৭ (চান্দিনা) আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক মো: আলী আশরাফ মারা যান। তখন আসনটি শূন্য হয়। পরে এ আসনে আশরাফপুত্র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনতাকিম আশরাফ টিটু দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। তবে মনোনয়ন লাভ করেন ডা: প্রাণ গোপাল দত্ত। পরে ওই বছরের সেপ্টেম্বর মাসে নৌকার প্রতীকে বিনাভোটে তিনি জয় লাভ করেন। এর পর থেকে প্রাণ গোপালের সঙ্গে আশরাফপুত্র টিটুর রাজনৈতিক দূরত্ব তৈরি হয় বলে এলাকায় প্রচার রয়েছে।

Author


Discover more from MIssion 90 News

Subscribe to get the latest posts to your email.

সম্পর্কিত সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এছাড়াও পরীক্ষা করুন
Close
Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker