জাতীয়টাঙ্গাইল

২৪ ঘণ্টায় বঙ্গবন্ধু সেতুতে প্রায় আাড়াই কোটি টাকা টোল আদায়

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে হাজারো স্বপ্ন নিয়ে ঘরে ফিরতে শুরু করেছে মানুষ। ঈদকে সামনে রেখে এ মহাসড়কে স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় যানবাহনের চাপ বেড়েছে।

শনিবার (৬ এপ্রিল) বিকাল পর্যন্ত কোথাও যানজট দেখা যায়নি। যানবাহনের চাপ বাড়তে থাকায় মহাসড়কে একমুখী যান চলাচল ব্যবস্থা কার্যকর করা হয়েছে।  

জানা যায়, বঙ্গবন্ধু সেতু-ঢাকা মহাসড়কে এলেঙ্গা থেকে সেতুর পূর্বপ্রান্ত পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ১৩ কিলোমিটার সড়কের প্রায় ৮ কিলোমিটার সড়ক এখনও দুই লেনের। যানবাহনের চাপ বাড়লে ওই ৮ কিলোমিটার এলাকায় যানজটের আশঙ্কা রয়েছে। মহাসড়কে যানবাহনের চাপ বাড়তে থাকায় এলেঙ্গা থেকে সেতুর গোলচত্তর পর্যন্ত শুধু উত্তরবঙ্গগামী যানবাহন চলতে দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে উত্তরবঙ্গ থেকে আসা যানবাহন সেতু পার হওয়ার পর ভূঞাপুর হয়ে বিকল্প সড়কে এলেঙ্গা পর্যন্ত চলাচলের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এদিকে, বাসেকের বঙ্গবন্ধু সেতু কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার (৫ এপ্রিল) সকাল ৬টা থেকে শনিবার (৬ এপ্রিল) সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে ২৮ হাজার ৭১০ টি যানবাহন পারাপার হয়েছে এবং মোট টোল আদায় হয়েছে দুই কোটি ৩৫ লাখ ৪৯ হাজার ৮০০ টাকা। এর মধ্যে বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্বপ্রান্ত অর্থাৎ টাঙ্গাইল অংশে ১৬ হাজার ৪৭৪টি যানবাহন পারাপারের বিপরীতে টোল আদায় হয়েছে এক কোটি ২৪ লাখ ১৮ হাজার ৮০০ টাকা এবং সেতু পশ্চিমপ্রান্তে সিরাজগঞ্জ অংশে ১২ হাজার ২৩৬ টি যানবাহন পারাপারের বিপরীতে টোল আদায় হয়েছে এক কোটি ১১ লাখ ৩১ হাজার টাকা।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) সন্ধ্যার পর থেকে মহাসড়কে যানবাহনের চাপ বাড়তে থাকে। যানজট এড়াতে এদিন রাত ১২টা থেকে শুক্রবার (৫ এপ্রিল) ভোর ৬টা পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্বপ্রান্তের সড়ক একমুখী (ওয়ানওয়ে) করে দেওয়া হয়। যাতে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা যানবাহন চার লেনের সড়ক দিয়ে দ্রুত এলেঙ্গা হয়ে সেতু পারাপার হতে পারে। 

Image

অপরদিকে, শুক্রবার রাত ১১টা থেকে সেতু পার হয়ে ভূঞাপুর সংযোগ সড়ক ব্যবহার করে যানবাহনগুলো এলেঙ্গায় এসে মহাসড়কে উঠতে পারে সে ব্যবস্থা করা হয়েছে। 

শনিবার বিকালে বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্ব প্রান্ত থেকে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার করটিয়া পর্যন্ত ঘুরে কোথাও যানজট দেখা যায়নি। তবে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে যানবাহন বেশি চলাচল করতে দেখা যায়। এ মহাসড়কে চলাচলকারী বাস-মাইক্রোবাস চালকরা জানায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসার পর সাভারের বাইপাইল ও গাজীপুরের চন্দ্রায় কিছুটা যানজটে পড়তে হয়েছে। তবে বেশিক্ষণ আটকে থাকতে হয়নি। টাঙ্গাইলের এলেঙ্গা পর্যন্ত আসতে স্বাভাবিকের চেয়ে কিছুটা বেশি সময় লেগেছে।

এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মীর মো: সাজেদুর রহমান জানান, মহাসড়কে যানবাহনের চাপ বাড়লেও কোনো যানজট নেই। স্বাভাবিকের মতো যানযাহনগুলো চলাচল করছে। ঈদের ছুটি হলে আরও যানবাহনের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে। 

টাঙ্গাইলের ট্রাফিক পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম সরকার জানান, যানবাহনের চাপ বাড়লেও এখন পর্যন্ত মহাসড়কের কোথাও কোনো যানজট দেখা দেয়নি। ঈদ সামনে রেখে মানুষ যাতে নির্বিঘ্নে বাড়ি ফিরতে পারেন- সে জন্য পুলিশ সর্বাত্মক চেষ্টা চালাচ্ছে।

বাসেক’র বঙ্গবন্ধু সেতু সাইট অফিসের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আহসানুল কবীর পাভেল জানান, ঈদের ছুটির আগেই মহাসড়কে যানবাহনের সংখ্যা বাড়ছে। যানজটের কথা মাথায় রেখে সেতুর উভয় অংশে ৯টি করে ১৮টি টোলবুথ স্থাপনসহ মোটর সাইকেলের জন্য পৃথক ৪টি টোলবুথ স্থাপন করা হয়েছে।

Author


Discover more from MIssion 90 News

Subscribe to get the latest posts to your email.

আব্দুস সাত্তার, বিশেষ প্রতিনিধি

নাম আব্দুস সাত্তার। তিনি পেশায় একজন সাংবাদিক। তিনি মিশন নাইনটি নিউজের একজন বিশেষ প্রতিনিধি হিসেবে নিযুক্ত আছেন।

সম্পর্কিত সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker