মেহেরপুর

গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার, স্বামী আটক

ছোকিনা নামের এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। মেহেরপুর শহরে পশুহাট পাড়ায় এঘটনা ঘটে। নিহত ছোকিনা খাতুন বদর আলী বগা কসাইয়ের স্ত্রী। এঘটনায় সদর থানা পুলিশ বদর আলীকে আটক করে থানায় নিয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ জুন) ভোর রাতে ঘরের বারান্দায় গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় ছোকিনা খাতুনের মরদেহ পরিবারের লোকজন দেখতে পেয়ে পুলিশ কে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

সম্পর্কিত সংবাদ

পুলিশ জানায়, ভোরে ছোকিনা খাতুনের গলায় ফাঁস লাগানো দেখতে পেয়ে মেয়ে সুমনা খাতুন চিৎকার দিলে পরিবারের অন্য সদস্য ছুটে আসেন। এসময় ছোকিনা খাতুন কে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দিলে সদর থানা পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহতের সন্তানদের অভিযোগের ভিত্তিতে ছোকিনা খাতুনের স্বামী বদর আলী বগা কসাই কে আটক করে পুলিশ। পরিবারের অভিযোগ ছোকিনার স্বামী রাতে তাকে ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে রাখে।

নিহত ছোকিনা খাতুনের মেয়ে সুমনা খাতুন জানান, রাতে মায়ের সাথে ঘরে ঘুমাতে যান। এক সাথে ঘুমালেও ভোর রাতে তার মাকে বিছানায় না পেয়ে ঘরের বাইরে বারান্দায় আসলে মায়ের ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করেন তিনি। পরে পরিবারের লোকজন ছুটে আসে। তিনি আরও জানান, তার পিতা বদর আলী বগা প্রতিনিয়ত তার মাকে নির্যাতন করে আসছিলো। বাবাই রাতে তার মাকে হত্যা করে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে রেখেছে বলে তিনি দাবী করেন।

মেহেরপুর সদর থানার ওসি শাহ দারা খান ঘটনার সত্যাতা নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশ ঘটনা স্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদেন্তর জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। হত্যার অভিযোগে স্বামী বদর আলী কে আটক থানায় জিঙ্গাসাবাদ করা হচ্ছে। ময়না তদন্তের পর জানা যাবে এটা হত্যা না আত্মহত্যা । পুলিশ ঘটনার পর বিভিন্ন ভাবে তদন্ত শুরু করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker