পঞ্চগড়

কাদিয়ানীদের জলসা নিয়ে পঞ্চগড় রণক্ষেত্র, নিহত এক

পঞ্চগড়ে কাদিয়ানীদের জলসা বন্ধের দাবিতে মুসল্লিদের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এক যুবক নিহত এবং পুলিশ, সাংবাদিকসহ অন্তত ৭০ জন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার (৩ মার্চ) জুম্মার নামাজের পর পঞ্চগড় জেলা শহরের চৌরঙ্গী মোড়ে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নিহত যুবকের নাম আরিফ (২৫)। গুরুতর আহত অবস্থায় রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

আরিফ পঞ্চগড় পৌরসভার মসজিদ পাড়া এলাকার ফরমান আলীর ছেলে।

পঞ্চগড় সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, আরিফের মাথায় বিভিন্ন ধরনের বিস্ফোরকের চিহ্ন পাওয়া যায়। তাই তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিল।

নিহত আরিফের পরিবার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আরিফ জুম্মার নামাজ পড়তে শহরের একটি মসজিদে যায়। এরপর ওই সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে বিস্ফোরণে তার মৃত্যু হয়।

May be an image of 1 person and beard
নিহত আরিফ

এদিকে আহম্মদিয়া সম্প্রদায় কাদিয়ানী মিডিয়া কর্মকর্তা মাহমুদ আহমেদ সুমন বলেন, প্রতি বছরে সালনা জলসা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু বিক্ষুব্ধ জনতা জলসা বন্ধের দাবিতে আন্দোলন করে আমাদের আহমেদ নগরে দলবেঁধে এসে হামলা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ করেছে।

স্থানীয়রা জানান, কাদিয়ানীদের জলসা বন্ধের জন্য একদল মুসল্লি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শহরের চৌরঙ্গী মোড়ের দিকে অগ্রসর হয়। এসময় পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এক পর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। পরে বিক্ষোভকারীরা শহরের বিভিন্নস্থানে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। এসময় পুলিশের ওপর তার ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে তারা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশও তখন ফাঁকা গুলি, টিয়াসেল ও রাবার বুলেট ছোড়ে। এতে তারা আরও বেপরোয়া হয়ে উঠে। শুরু হয় ধাওয়া- পাল্টাধাওয়া, অগ্নিসংযোগ।

সরেজমিন, শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশ সতর্ক অবস্থায় অবস্থান করছে। এদিকে দীর্ঘ চার ঘণ্টা সংঘর্ষের পর সন্ধ্যার দিকে পরে পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এসেছে।

পঞ্চগড়ের পুলিশ সুপার এসএম সিরাজুল হুদা বলেন, ওই ঘটনায় কমপক্ষে ৩০ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। দুপুর থেকে অতিরিক্ত পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে। আমরা কাদিয়ানী সম্প্রদায়ের সালানা জলসা আয়োজক কমিটিকে সালানা জলসা বন্ধ করতে বলেছি।

বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে উল্লেখ করে জেলা প্রশাসক জহুরুল ইসলাম বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী শহরের বিভিন্ন এলাকায় টহল দিচ্ছে। কাদিয়ানীদের তিন দিনের সালানা জলসা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

Author


Discover more from MIssion 90 News

Subscribe to get the latest posts to your email.

সম্পর্কিত সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এছাড়াও পরীক্ষা করুন
Close
Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker